মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

পাবনা জেলার ফরিদপুর উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা

 

 

তথ্য ছক

সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়

স্কুল

মাদ্রাসা

কলেজ

টেকনিক্যাল কলেজ

৮২টি

১৩টি

১৫টি

০৫টি

০৩টি

 

১। আইসিটি ডেভেলপমেন্ট:অত্র উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আইসিটি ডেভেলপমেন্ট এর জন্য মোট ৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ এর মাধ্যমে হাতে কলমে শিক্ষা প্রদান করে  উক্ত প্রতিষ্ঠান সমূহে ল্যাপটপ, মডেম এবং মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টের মাধ্যমে শিক্ষা প্রদান করা হয়। এর ফলে ডিজিটাল কন্ট্রেন্ট  ডেভেলপমেন্ট এর মাধ্যমে শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদেরকে মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টের মাধ্যমে পাঠ দান করান। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে ইন্টারনেট সংযোগ থাকায় প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে বিভিন্ন তথ্য ছক পূরণসহ শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের বিভিন্ন কার্যাদি সম্পন্ন হইয়া থাকে।

 

২। বই বিতরণ:অত্র উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহে মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের মাধ্যমে ৬ষ্ঠ থেকে ৯ম শ্রেনী পর্যন্ত এবং এবতেদায়ী-দাখিল ও এসএসসি (ভোক) পর্যন্ত সকল শ্রেনীর  বই বিতরণ করা হইয়াছে। যা সরকারের যুগান্তকারী পদক্ষেপ।
 

৩। বিদ্যালয় পরিদর্শন ও পরিবীক্ষণ:উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের মাধ্যমে প্রত্যেক বিদ্যালয়ে এসবিএ, পিবিএম ও সিকিউ বাস্তবায়নের জন্য ১৮ থেকে ২০টি বিদ্যালয়কে একটি ক্লাস্টার  ধরে ক্লাষ্টার বন্টন করা হইয়াছে। ক্লাস্টার ভিত্তিক কর্মকর্তার মাধ্যমে নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।

 

 

৪।প্রশিক্ষণ:সকল শিক্ষকদের বিষয়ভিত্তিক প্রশিক্ষণ প্রদান করা হইয়াছে। সৃজনশীল প্রশ্নপত্র প্রণয়ন ও উত্তর পত্র মূল্যায়নের জন্য সকল শিক্ষককে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হইয়াছে। আইসিটি ডেভেলপমেন্ট প্রশিক্ষণ চলমান।

 

৫। উপবৃত্তি প্রদান:অত্র উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের মাধ্যমে ৬ষ্ঠ থেকে স্নাতক পর্যন্ত বিভিন্ন  বিভিন্ন ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে উপবৃত্তি প্রদান করা হচ্ছে।

 

৬।সহশিক্ষাভিত্তিক কার্যক্রম:উপজেলা পর্যায়ে শীতকালীন ও গ্রীষ্মকালীন খেলাধুলার আয়োজন করা হয় এবং সহশিক্ষাক্রমিক বিভিন্ন কার্যাবলী সম্পন্ন করা হয়। এছাড়াও প্রতিষ্ঠানের অবকাঠামোগত উন্নয়ন তদারকি করা হয়।

 

শিক্ষা কার্যক্রমকে গতিশীল এবং যুগোপযোগী করার লক্ষ্যে শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের নির্দেশিত বিভিন্ন কর্মকান্ড মাঠ পর্যায় থেকে সুচারুভাবে সম্পন্ন করা হয়।